মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব ইউরোপে রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থার বিভিন্ন যান্ত্রিক সংস্থাপনার বিষয়ে নেতিবাচক সিদ্ধান্ত বিশ্বের রাজনৈতিক মহলের সাধু বাদ পেয়েছে.

    ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নেতারা বৃহস্পতিবারে ব্রাসেলসে মিলিত হয়ে বারাক ওবামার এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন. জার্মানীর চ্যান্সেলার এঞ্জেলা মেরকেল এটাকে "আশার লক্ষণ ও রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের সমস্যাগুলিকে অতিক্রম করার জন্য প্রয়োজনীয় বিষয়" বলে ব্যাখ্যা করেছেন. ওবামার এই উদ্যোগ কে ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি নিকোলা সারকোজি নাম দিয়েছেন সব দিক থেকেই "দারুণ ভাল".

         আমেরিকাতেও রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তকে মেনে সমর্থন করা হয়েছে. প্রশাসন ইউরোপে রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা সম্বন্ধে নমনীয় পথ নিয়েছে. কংগ্রেসের হেলসিঙ্কি কমিশনের যুগ্ম প্রধান বেঞ্জামিন কারডিন ও এলসি হাসটিংস এই ঘোষণা করেছেন. আমেরিকার প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ দিমিত্রি সাইমসের মতে এটি বুদ্ধিমত্তার পরিচয়. একটি সাক্ষাত্কারে তিনি বলেছেন, ওবামা প্রশাসন অবশ্যই মধ্য ও পূর্ব ইউরোপের মতামতের দাম দেয়, তবে জর্জ বুশের রাজনৈতিক ধারণা অনুযায়ী প্রাগ ও ওয়ারশ থেকে টানা দড়ির পেছনে চলে না, যারা এর আগে এই রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে মস্কোর উপরে চাপ সৃষ্টি করার জন্য ব্যবহার করত.

    রাশিয়াতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই রাজনৈতিক দিক পরিবর্তনকে সন্তোষের সাথে মেনে নেওয়া হয়েছে. এই বিষয়ে রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ বলেছেনঃ

    "আমি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার সঙ্গে এই বিষয় নিয়ে লন্ডনে এবং মস্কোতে আলোচনা করেছি. বিশেষ করে আমরা চুক্তিবদ্ধ হয়েছি ও আমাদের চুক্তি গুলিতে দলিল করেছি যে, রাশিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বে রকেট বাহিত বোমার প্রসারের ঝুঁকির বিচার সম্বন্ধে এক সঙ্গে কাজ করবার জন্য চেষ্টা করবে. ওয়াশিংটন থেকে করা ঘোষণা প্রমাণ করছে যে, এই রকম কাজ করবার জন্য পরিস্থিতি ভালর দিকে এগোচ্ছে".

         তা স্বত্ত্বেও ওয়াশিংটনের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে কোন নেশাগ্রস্থ হওয়ার দরকার নেই. রাশিয়ার পার্লামেন্টের আন্তর্জাতিক কমিটির প্রধান কনস্তানতিন কোসাচেভ বিশেষত এই রকম ধারণা পোষণ করেন.

    "এটা এখনো শেষ নয়, এখনো সম্পূর্ণ সুরে সুর মেলে নি, সম্পূর্ণ এক মতে পৌঁছনো সম্ভব হয় নি. কিন্তু এটা কথোপকথনের শুরু. একদম ঠিক যে, রাশিয়ার অভিমত এবং তার অনুভব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়ে যে কারণ গুলিকে প্রাধান্য দেওয়া হয় তার থেকে কোন অংশে কম নয়".

         বারাক ওবামার সিদ্ধান্ত – নতুন রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা থেকে সম্পূর্ণ ভাবে সরে আসা নয়. চেখিয়া ও পোল্যান্ডে স্থায়ী রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থার বদলে ২০১৫ সালের মধ্যে নমনীয় ও বিভিন্ন ভাবে ভাগ করা রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা তারা সৃষ্টি করতে চলেছে, যার অধিকাংশই থাকবে সমুদ্রে ভাসমান হয়ে চলমান অবস্থায়. তাই রাশিয়ার ন্যাটো জোটের স্থায়ী প্রতিনিধি দিমিত্রি রগোজিনের মতে কিছু আশংকা থেকেই যাচ্ছে.

    "যেসব জাহাজ গুলিতে নতুন রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা বসানোর কথা হচ্ছে, সেগুলি আজ এখানে, কাল অন্য কোনখানে থাকতে পারে. আর রাশিয়া ও ন্যাটো জোট বা রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে কোন রকমের সম্পর্কের জটিলতা সৃষ্টি হলে সেগুলি রাশিয়ার সমুদ্র তীরে হাজির হতেই পারে".

    বর্তমানে মনে হয়, রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা সম্পর্কে প্রথম পদক্ষেপ নিয়ে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এর আগে ম্রিয়মাণ সম্পর্কের পুনঃ নবীকরণ শুরু হয়েছে. এই ধারা টি বজায় রাখতে প্রয়োজন হবে গঠন মূলক আলোচনার মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা, যাতে সেই ব্যবস্থা সমভাবে দুই পক্ষেরই ইচ্ছাপূরণ করতে পারে.

<sound>