মলদাভিয়ায় আজ নতুন পার্লামেন্টের প্রথম অধিবেশন বসছে, যা গঠন করা হয় গত ২৯ জুলাইয়ের সাধারন নির্বাচনের পরে .আর ঐ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট এবং বিপক্ষ দল কোনটিই আশানুরূপ ফলাফল করতে পারেনি . নির্বাচনে কমিউনিস্ট দল পেয়েছে ৪৮টি আসন এবং ইউরোপিয়ন সংহতি দল পেয়েছে ৫৩টি আসন.আর এই সংখ্যা পার্লামেন্টের স্পীকার ও জনপ্রতিনিধী নির্বাচনের জন্য যথেষ্ট .যদিও মলদাভিয়ায় প্রেসিডেন্ট পদে এখনও আসীন রয়েছেন ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট নেতা ব্লাদিমীর বারোনিন.কারন মলদাভিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে হলে একজন প্রার্থীকে ৬১টি ভোট
পেতে হয়.যদি পার্লামেন্ট নতুন রাষ্ট্র নেতা নির্বাচনে ব্যর্থ হয় তাহলে প্রেসিডেন্ট ও প্রাধানমন্ত্রীর পদে আসীন হবে ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির নেতারা আর পার্লামেন্টর পুরো অধিকার ভোগ করবে বিপক্ষের দল.