তদন্তকারীরা সু-২৭ মার্কা দুটি ফাইটার বিমানের দুর্ঘটনার বিভিন্ন ভার্সন অধ্যন করছেন. এ দুর্ঘটনা ঘটেছে এর প্রাক্কালে মস্কো উপকন্ঠের ঝুকোভস্কির আকাশে. বিভিন্ন ভার্সন বিবেচনা করা হচ্ছে, যেমন মানবিক উপাদান, বিমানের ক্ষয়, অপ্রত্যাশিত ঘটনা- বিমানের ইঞ্জিনে পাখি ঢুকে পড়া ইত্যাদি. প্রত্যক্ষদর্শীরা নিশ্চয়োক্তি করছে যে, উচ্চ মানের ফিগার পাইলটিংয়ের সময় ভুল সাধিত হয়েছিল, তবে আইন ও শৃঙ্খলা রক্ষা সংস্থায় জানানো হয়েছে যে, বিপর্যয়ের কারণ বলা যাবে শুধু অকুস্থলে পাওয়া ব্ল্যাক বক্সের রেকর্ডিং বিশ্লেষণের পরই. আন্তর্জাতিক মাক্স-২০০৯ বিমান প্রদর্শনীর প্রাক্কালে অনুশীলনমূলক উড্ডয়নের সময় সু-২৭ মার্কা দুটি ফাইটার বিমনের ধাক্কা লাগে. রুসস্কি ভিতিয়াজ বৈমানিক দলের কম্যান্ডার ইগর ত্কাচেনকো এ দুর্ঘটনায় মারা যান. অন্য দুই বৈমানিক বেরিয়ে আসেন ক্যাটাপুল্টিং করে, তবে তাঁরা আঘাত পেয়েছেন.