মস্কো ও সিওলে দক্ষিণ কোরিয়াতে বানানো প্রথম রকেট পাঠানোর তোড়জোড় চলছে. যান্ত্রিক গোলযোগ থাকায় ৩০ শে জুলাই ১০০ কিলোগ্রামের এই উপগ্রহ টিকে পাঠানো যায় নি. রাশিয়া জানিয়েছে যে, কোরিয়ার রকেট টি পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে যে, আর কোন সমস্যা নেই. দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম কসমোড্রম "নারো" তে রকেট টি পাঠানোর সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে রাশিয়ার বিজ্ঞানী ও কুশলীদের সাহায্যে. খুব শীঘ্রই রকেট পাঠানোর দিনটি জানা যাবে. আবহাওয়া এ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ কারণ আবার ঘূর্ণি ঝড় হওয়ার আশংকা আছে. দক্ষিণ কোরিয়া সংবাদ সংস্থা "রেনহাপ" জানিয়েছে যে, এই কে এস এল ভি -১ মহাকাশ সিস্টেম তৈরী করতে ৪০ কোটি ডলার খরচ হয়েছে.