বলিভিয়া প্রায় ১০ কোটি ডলারের ঋণের জন্য রাশিয়ার কাছে আবেদন করতে চায়. এ অর্থ ব্যবহৃত হবে সামরিক প্রযুক্তি ও অস্ত্রশস্ত্র কেনার জন্য, এবং রাষ্ট্রপতির বিমানের জন্য, বলেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ওয়ালকার সান মিগেল্যা. তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, রাশিয়ার কাছ থেকে প্রাপ্ত ঋণ পুরনো প্রযুক্তি বদলানোর, বিশেষ করে হেলিকপ্টার, ট্রাক ও জাহাজ বদলানোর সুযোগ দেবে. লা-পাসে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত লেওনিদ গলুবেভ জানিয়েছেন যে, বলিভিয়ার রাষ্ট্রপতির জন্য বিমান ২০১১ সালেই পৌঁছোতে পারে. সর্বাধুনিক যন্ত্রপাতিতে সজ্জিত এ বিমানের মূল্য হবে প্রায় ৩ কোটি ডলার.