রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ যে সব দেশে যুযুধান প্রতিপক্ষ নিজেদের মধ্যে যুদ্ধের সময় শিশুদের আন্তর্জাতিক অধিকার রক্ষা আইন ভঙ্গ করে, তাদের প্রতি নিষেধাজ্ঞা জারী করার সিদ্ধান্ত কে সমর্থন করেছে. এই দলিলে অপ্রাপ্তবয়স্কদের প্রতি অপরাধী দের অপরাধের তালিকায় আরও কয়েকটি সংযোজন করা হয়েছে, তাদের "কালো তালিকা" ভুক্ত করার জন্য. যুদ্ধের কারণে ব্যবহার ছাড়াও এই দলিলে হত্যা, বলাত্কার এবং গুরুতর ভাবে আহত করার কথাও যোগ করা হয়েছে. এই সমস্যা আজ সবচেয়ে বেশী দেখা যাচ্ছে আফ্রিকান দেশগুলিতে, বিশেষত, কঙ্গোতে, সুদানে, উগান্ডাতে, মধ্য আফ্রিকা রিপাব্লিকে, চাদে ও সোমালিতে. দলিলে বলা হয়েছে যে, এই সব দেশে শিশুদের উপর করা অপরাধের প্রমাণ বিশ্বকে আলোড়িত করেছে. ২০০৫ সালে গ্রহণ করা এই প্রাথমিক দলিলের ভিত্তিতে রাষ্ট্রসংঘের সাধারন সম্পাদক নিয়মিত এই বিষয়টিতে দৃষ্টি আকর্ষণ করে তাঁর সামগ্রিক ভাবে বিশ্ব পর্যালোচনা পেশ করে থাকেন ও এই পর্যালোচনার ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে থাকে, বিশেষত, বাচ্চাদের উপর যারা জুলুম করেছে, সেই সব লোককে আন্তর্জাতিক ফৌজদারী আদালতে বিচারের জন্য তোলা হবে.