কনরাড ম্যুরে, মাইকেল জ্যাকসনের ব্যক্তিগত চিকিত্সক, জেরার মুখে স্বীকার করেছে যে, সে মৃত্যুর আগে এই বিশ্ব বিখ্যাত সঙ্গীত শিল্পীকে জোরালো ব্যথা কমাবার ওষুধ প্রোপোফল ইঞ্জেকশন করেছিল, যাতে তিনি ঘুমোতে পারেন. এই ইঞ্জেকশনের ফলেই জ্যাকসন মারা গিয়েছেন বলে গোয়েন্দারা ভাবছেন. ডাক্তার অবশ্য এর আগেও কয়েকবার এই ইঞ্জেকশন করেছিল. লস এঞ্জেলসের জ্যাকসনের বাড়ীতে এই ওষুধ ছাড়াও আরও অনেক রকম ব্যথা কমাবার ও ঘুমের ওষুধ পাওয়া গেছে. পুলিশের মতে জ্যাকসনের মৃত্যু হয়েছে ডাক্তারের অদূরদর্শিতার ফলে.