মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র শক্তিশালী রাশিয়ায় আগ্রহী এবং তাকে এক মহান শক্তি বলে বিবেচনা করে. এ সম্পর্কে এন.বি.সি. টেলিকোম্পানিকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন পররাষ্ট্র সচিব হিলারী ক্লিন্টন. তাঁর কথায়, ওয়াশিংটন মস্কোর সাথে পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপ বিকাশ করতে চায় সর্বপ্রথমে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে, পারমাণবিক অস্ত্র ভান্ডার হ্রাসে, ব্যাপক নরহত্যার অস্ত্র প্রসার নিরোধের ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করায়. ক্লিন্টন মনে করেন যে, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে পেরেজাগ্রুজকা-র জন্য সময় ও প্রচেষ্টা প্রয়োজন, তবে মস্কোয় সাম্প্রতিক রুশ-মার্কিন শীর্ষ বৈঠক তার সুন্দর সূচনা হতে পারে. বহু প্রশ্ন আছে, যাতে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্থিতির মিল আছে, তবে মতভেদও আছে, যা দু দেশের পারস্পরিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক ব্যাপার. তাদের সহযোগিতা কত মাত্রায় সফলভাবে বিকশিত হবে,তার উপর নির্ভর করছে সারা পৃথিবীর সাধারণ পরিস্থিতি, উল্লেখ করেন ক্লিন্টন. ইরান ও উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক সমস্যার মীমাংসায় সক্রিয় সহায়তার জন্য তিনি রাশিয়াকে ধন্যবাদ জানান.