প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ রাশিয়াকে দেখেন ত্রকটি আধুনিক,স্বনির্ভর ও পরাশক্তির দেশ রূপে.রুশ প্রেসিডেন্ট টেলিভিশন চ্যানেল ত্রনটিভির নিয়মিত অনুষ্ঠান “রাশিয়ার প্রসিডেন্টের সাথে টক শো” শীর্ষক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন .জনপ্রিয় ও তথ্যবহুল এ অনুষ্ঠান রাশিয়ার বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলগুলি প্রচার করে থেকে.
টক শো অনুষ্ঠানে যে বিষয়গুলি প্রাধান্য পায় তা হল-বর্হিবিশ্বর সাথে রাশিয়ার পররাষ্ট্র সম্পর্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর সাথে রাশিয়ার বর্তমান সম্পর্ক,কাবকাজ পরিস্থিতি ত্রবং বর্হিবিশ্ব রাশিয়ার ভাবমূর্তি. “আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি হতে হবে সহমর্মিতামূলক ত্রবং আমাদের সাথে যেসকল রাষ্ট্রের কূটনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে তাদের কাছ থেকেও অনুরূপ আমরা আশা করি আর তা উভয় রাষ্ট্রের জন্যই মঙ্গল বয়ে আনবে বলে আমি মনে করি.আমরা অবশ্যই ত্রমন কোন প্রতিবন্ধকতামূলক কার্যক্র্ম পরিচালনা করব না যা বৃহও স্বার্থকে নষ্ট করে.কিন্তু ত্রকই সাথে এ ধরনের কোন প্রতিবন্ধকতামূলক পরিস্থিতি আমাদের সামনে উপস্থিত হলে তার যথার্থ উওর প্রধান করা হয়.কখনও বা তা অত্যন্ত কঠোর ভাবে.
তবে তা কেবল তখন যখন তা আমাদের নাগরিকদের জীবনের প্রতি হুমকি হয়ে দাড়ায়.ত্রছাড়া অন্যসব বিষয়ে আমাদের প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে আমরা সহমর্মিতা, সহানুভূতির সম্পর্ক বজায় রাখার চেষ্টা করছি”, বললেন রুশ প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ.
টেলিভিশন চ্যানেল ত্রনটিভির “রাশিয়ার প্রসিডেন্টের সাথে টক শো”অনুষ্ঠানের এবারের সর্বশেষ পর্বে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ন বিষয়ের প্রতি রুশ প্রেসিডেন্টের দৃষ্টি আকর্ষন করা হয়. বিশেষ করে বলা হয় যে বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রই রাশিয়ার সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে বেশ আগ্রহ পোশন করছে যেমনটি করতে দেখা যাচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর সাথে.

“আমি ত্রকে সঠিক পন্থা বলে মনে করি না.বিশেষ করে যদি কোন রাষ্ট্র রাশিয়ার সাথে সম্পর্কের দিকটিকে যদি যুক্তরাষ্ট্রর সাথে যে সম্পর্ক তারই অনুরূপ মনে করে তহলে তা সঠিক ধারনা বলে বিবেচিত হবে না .আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর সাথে সম্পর্ককে রাশিয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন,কর্মমুখী ও বন্ধুত্বপূর্ন বলে মনে করে.বিশেষ করে ত্রই দুটি রাষ্ট্রের উপরই অনেক কিছু নির্ভর করে”. বললেন দিমিত্রি মেদভেদেভ.
দিমিত্রি মেদভেদেভ ত্রকই সাথে বলেছেন যে, আমাদের বিশেষ কিছু নীতি নির্ধারন করতে হবে যা অভ্যন্তরীন ও বর্হিরাষ্ট্রর জন্য কার্যকর করা হবে.আর আমাদের পরাশক্তি রাষ্ট্র রূপে গড়ে তুলতে হলে অবশ্যই আমাদের দেশকে আরও আধুনিকায়ন করতে হবে.তাই রাষ্ট্রে ত্রখনও যে সমস্যাবলী রয়েছে বিশেষকরে সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে তা অচিরেই আমাদেরকে সমাধানের চেষ্টা করতে হবে. আর যথন ত্রই সমস্যা আমরা সমাধান করতে পারব তখন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আমাদের অনেক সমস্যা সমাধানে বেগ পেতে হবে না .
টক শোর সর্বশেষে দিমিত্রি মেদভেদেভ রাষ্ট্রের দূর্নীতি দমনে গৃহিত কার্যক্রমগুলো তুলে ধরেন.তিনি বলেন, আমার প্রেসিডেন্ট মেয়াদকালে যেসকল কার্যক্রমকে আমি তালিকাবদ্ব করেছি তার মধ্যে অন্যতম হল দূর্নীতির বিরুদ্ধে সংগ্রাম. (sound)