রাশিয়া ও চীন সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলা করতে সহযোগিতার পথ মজবুত করছে. চীনের উত্তর পূর্বের তাওনান এ শুরু হচ্ছে দুই দেশের সৈন্য বাহিনীর দ্বিতীয় দফার সম্মিলিত অনুশীলন. লক্ষ্য – সন্ত্রাসবাদী দলের নিধনে সম্মিলিত হামলার পরিকল্পনার বাস্তবায়ন. এই প্রথম দুই দেশের অনুশীলনে সম্পূর্ণ সামরিক বাহিনী ও সমস্ত রকমের সামরিক অস্ত্রের ব্যবহার করা হবে. রাশিয়ার বিমান ও হেলিকপ্টার বাহিনী থেকে হামলার জন্য সেনা নামানো হবে. বিশেষ সমীক্ষার জন্য তৈরী পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র থেকে এই প্রশিক্ষণের উপর নজর রাখবেন রাশিয়ার ও চীনের সামরিক বাহিনীর প্রধান জেনেরাল নিকোলাই মাকারভ এবং তাঁর সহযোগী চেন বিন্দে. মাকারভ গত কয়েক দিন আগের ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ ফিল্ড ক্যাম্প ও পরিদর্শন করবেন, যেখানে এই অনুশীলনে যোগ দেওয়ার জন্য রাশিয়া ও চীনের তিন হাজারের কাছাকাছি সৈন্য বাহিনী মোতায়েন রয়েছেন. প্রচুর রকমের সাঁজোয়া গাড়ী, বিমান ও হেলিকপ্টার এই অনুশীলনের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে.