বড় আটটি দেশের নেতারা ইতালিতে কিছুদিন আগে ভূমিকম্পে অর্ধবিদ্ধস্ত আকিলা শহরে আলোচনায় বসেছেন বিশ্বের অর্থনৈতিক সঙ্কট কি করে কাটানো যায়. আমাদের সংবাদদাতা জানিয়েছেন যে, বর্তমানের বৈঠক বিশ্ব অর্থনৈতিক সঙ্কটের পরিপ্রেক্ষিতে সর্ববৃহত্ভাবে প্রতিনিধি সংখ্যা অনুযায়ী এবং সবচেয়ে কম খরচের দিক থেকে হচ্ছে. বিশ্বের বর্ধিষ্ণু দেশ গুলির নেতারা রয়েছেন সেনা বাহিনীর ছাউনিতে এবং তাঁদের সবচেয়ে বিলাস বহুল দ্রব্য যা আছে তা হল রেফ্রিজারেটর ও সাধারন এয়ার কণ্ডিশনার যা এই রকম ৩০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড গরমে অত্যাবশ্যক. আজ বৈঠকের দ্বিতীয় দিনে আট দেশের নেতাদের সাথে যোগ দিয়েছেন আরও কয়েকটি অর্থনৈতিক ভাবে উন্নতি শীল দেশের নেতারা. বড় আসরে আলোচনা হচ্ছে অর্থনৈতিক উন্নয়নের উত্স সন্ধানের, আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ সংস্থা গুলির কাঠামো পরিবর্তন, বাণিজ্য ক্ষেত্রে বাধা নিষেধ দূর করা, খাদ্য দ্রব্য সংক্রান্ত সমস্যার দূরীকরণ এবং আবহাওয়ার পরিবর্তন সমস্যার সমাধান. আজ রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি তাঁর দ্বিপাক্ষিক বৈঠক গুলিও চালু রাখবেন. অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে ও বিনিয়োগের বাজারে নিয়ম কানুন সর্বজন গ্রাহ্য ও রাজনৈতিক প্রভাব বিহীণ করতে এবং বাজার কে সংরক্ষণ নীতির আওতার বাইরে রাখতে জি – ৮ এর নেতারা গতকাল সম্মিলিত ঘোষণা করেছেন. উন্নয়ন শীল দেশ গুলিকে সহায়তার পরিমাণ বৃদ্ধির কথা ঘোষণা তে বলা হয়েছে. এই বৈঠকের একটি বিশিষ্ট সিদ্ধান্ত হয়েছে বিশ্বে কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের আবহাওয়ায় পরিবর্জন ২০৫০ সালের মধ্যে শতকরা ৫০ ভাগ কমানো এবং উন্নত দেশগুলির ক্ষেত্রে এই পরিমাণ ৮০ শতাংশ করা.