জাপানের পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ একমতে একটি খসড়া আইন অনুমোদন করেছে, যাতে দক্ষিণ কুরিল দ্বীপপুঞ্জকে চিরন্তন ভূভাগ বলে অভিহিত করা হয়েছে. আগে তা গৃহীত হয়েছিল নিম্ন কক্ষের দ্বারা, অতএব এ আইন কার্যকরী হচ্ছে. চিরন্তন ভূভাগ পরিভাষাটি  ব্যবহৃত হচ্ছে ইতুরুপ, শিকোতান, কুনাশির ও হাবোমাই দ্বীপ সম্পর্কে, যেগুলিকে জাপান বিতর্কমূলক বলে মনে করে, তবে এই প্রথম তা দেশের আইনবিধিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে. মস্কোয় মনে করিয়ে দেওয়া হচ্ছে যে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ফলাফল অনুযায়ী এ দ্বীপগুলি সোভিয়েত ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল, যার উত্তরাধিকারী হল রাশিয়া. এ দ্বীপগুলিতে রাশিয়ার সার্বভৌমত্ব সূত্রবদ্ধ রয়েছে আন্তর্জাতিক বিধানিক সব দলিলে. দক্ষিণ কুরিল দ্বীপপুঞ্জের অন্তর্ভুক্তির সমস্যাটি রাশিয়া-জাপান সম্পর্কে একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা. টোকিওর মতে, এ বিষয়টি মীমাংসার উপর দু দেশের মাঝে শান্তি চুক্তির স্বাক্ষর নির্ভর করবে. জাপানের পার্লামেন্টের সিদ্ধান্ত এ সমস্যাকে পুরোপুরি কানাগলিতে নিয়ে গিয়ে ফেলতে পারে, বলা হয়েছে মস্কোয়.