সিস্টেমা শ্যাম টেলি সার্ভিসেসের দক্ষিণ ভারতের তামিলনাডু রাজ্যে গ্রাহক সংখ্যা দেড় লক্ষ পার হয়েছে, ৭৪ শতাংশ মূল ধনের মালিক রাশিয়ার এ এফ কে সিস্টেমা নামের কোম্পানী. দু মাসের ও কম সময়ে আরও একটি তথ্য যোগাযোগ কেন্দ্রে এরকম ফল পাওয়া গেছে. এম টি এস ব্র্যান্ডের এই কোম্পানী বর্তমানে ভারতে তামিলনাডু সমেত ভারতের ৫৬০ টি শহরে প্রসারিত হয়েছে এবং আরও হচ্ছে.

    তামিলনাডু ও কেরালা রাজ্যের সিস্টেমা শ্যাম টেলি সার্ভিসেসের প্রধান পরিচালক শ্রীনিরাও সারিপাল্লী মনে করেন যে, গ্রাহকদের এই মনোযোগের কারণ প্রদেয় পরিষেবা এবং পরিচর্যা.

    ভারতের অন্যান্য শহরের মত কলকাতা শহরে ভারতে লগ্নীকারী রাশিয়ান ফাইনানসিয়াল শেয়ার হোল্ডিং কোম্পানী সিস্টেমার তত্ত্বাবধানাধীণ টেলিকমিউনিকেশন অপারেটর সিস্টেমা শ্যাম টেলেসার্ভিসেস লিমিটেড এমটিএস ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন সঞ্চারের ব্যবস্থা ব্যবসায়িক ভাবে চালু করেছে.  সিস্টেমা শ্যাম টেলেসার্ভিসেস লিমিটেডের ডিরেক্টর ফ্সিয়েভোলদ রোজানভ এই উপলক্ষে জানিয়েছেন: “এমটিএস বাস্তবিক ক্ষেত্রেই প্রয়োজনীয় প্যান – ইন্ডিয়ান ব্র্যান্ড হয়ে দাঁড়াচ্ছে, কলকাতাতে এমটিএস ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন সঞ্চারের ব্যবস্থা ভারতবর্ষে আন্তর্জাতিক মানের পরিষেবা শক্তিশালী করে তোলার ক্ষেত্রে একটি স্ট্র্যাটেজিক পদক্ষেপ. আমরা ভারতবর্ষে গণ্য করার মত বিনিয়োগ করেছি এবং এর বেশীর ভাগটাই করা হয়েছে মোবাইল ফোন সঞ্চারের প্রসারনের ব্যবস্থায়. এমটিএস ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন সঞ্চারের ব্যবস্থা পৃথিবীতে একটি অন্যতম ক্ষমতাশালী সংস্থা ও আধুনিক মোবাইল টেলিফোন সঞ্চারের প্রথম সারির পরিষেবা দেওয়ার ক্ষমতা রাখে আর তা আমরা আমাদের ভারতীয় গ্রাহক দের নিবেদন করছি. কলকাতাতে এই পরিষেবা চালু করতে পেরে আমরা আনন্দিত এবং এই সঞ্চার ব্যবস্থা প্রসারিত করবো বলে অঙ্গীকার বদ্ধ. বর্তমানে কলকাতার সমস্ত টেলিকমিউনিকেশন পরিষেবার খুচরো বিক্রয় কেন্দ্রে এই ব্র্যান্ডের প্যাকেজ কিনতে পাওয়া যাচ্ছে. বেশ কয়েকটি সস্তা দামের প্যাকেজ অন্য অপারেটরদের তুলনায় এই ব্র্যান্ডের প্যাকেজ গ্রাহক দের জন্য আকর্ষণীয় ও সুবিধাজনক করে তুলেছে. জুন মাসের শেষের মধ্যেই এই পরিষেবা কলকাতার বাইরের বড় শহর গুলিতে ও মূল যানবাহন চলার শড়ক গুলিতেও পাওয়া যাবে. বর্তমানে সারা ভারতে গ্রাহক সংখ্যা ১০ লক্ষেরও বেশী.