মস্কো জর্জিয়ার বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে. দেশটির জনগনদের লাগাতার আন্দোলন পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে স্বয়ং জাতিসংঘ. জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার দুত বিতালী চুরকিন কাবকাজের পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘের মহাসচিব পান কি মুনের সাথে এই বিষয় নিয়ে আলোচনাকালে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন.
রুশ কুটনৈতিক উল্লেখ করে বলেন যে, আর্ন্তজাতিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জর্জিয়ার আক্রমনাত্বক দৃষ্টিভঙ্গি ত্রই দেশগুলোর মধ্যে আবারও উত্তেজনা সৃষ্টি করেছে. জর্জিয়ার এ ধরনের মনোভাব ছিল ঠিক ত্রকবছর আগে আগষ্ট মাসে. যখন দক্ষিন ওসেটিয়ার বিরুদ্ধে জর্জিয়া যুদ্ধ ঘোষনা করে.
আামরা ত্রই সব বিষয় নিয়েই নিরাপত্তা পরিষদের সঙ্গে আলোচনা করবো. যদিও ত্রই বিষয়ে সবাই জ্ঞাত আছে যে, নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্বান্তগুলো পশ্চিমা ইউরোপীয় কয়েকটি দেশই নির্ধারন করে. যা মূলত সঠিক পন্থা নয়,বললেন বিতালী চুরকিন. কী বলেছিলেন জাতিসংঘের মহাসচিব পান কি মুন তার নিজের বক্তৃতায়, সে বিষয়ে জানতে চাইলে বিতালী চুরকিন বলেন, মহাসচিব তার বানীতে বলেন যে, জর্জিয়া ও আবখাজায়ার সীমীন্তবর্তী ত্রলাকায় উত্তেজনা পরিস্থিতি নিবারন করতে ইতিমধ্যেই দু-পক্ষের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে. ত্রছাড়া ত্রই অন্চলর যাবতীয় বিরোধপূর্ন সমস্যাবলী নিয়ে আগামী ১৫ জুন সোভিয়েত নিরাপত্তা পরিষদের সম্মেলনে আলোচনা করা হবে.তবে ত্রর আগে ত্রকটি সঠিক দিক নির্দেশনা থাকা চাই বলেন ,জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার দুত বিতালী চুরকিন