শান্তির প্রয়োজনে সম্মিলিত প্রয়াস নামের এই কার্যক্রমের অন্তর্গত ন্যাটোর বহুজাতিক সামরিক মহড়ার দ্বিতীয় ধাপ আজ জর্জিয়া তে শুরু হচ্ছে. লংবৌ কোঅপারেটিভনামের এই মহড়া হবে তিবিলিসির উপকন্ঠে সেনাবাহিনীর ঘাঁটিতে, অংশ নিচ্ছে ন্যাটোর সভ্য দেশ এবং অংশীদার ১৪টি দেশের প্রায় ১ হাজার সেনা.

আর্মেনিয়া, মলদাভিয়া, সুইজারল্যান্ড, সেরবিয়া, কাজাখস্থান, লাতভিয়া ও এস্তোনিয়া, আগে এই প্রশিক্ষণে অংশ নিতে রাজি হলেও শেষ অবধি সৈন্য পাঠাতে রাজি হয়নি. রাশিয়ার পক্ষ থেকে এই মহড়ার কড়া সমালোচনা করা হয়েছে. রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ বলেছেন যে, এই প্রশিক্ষণ, যেখানে কয়েকদিন আগেই যুদ্ধ হয়েছে, সেখানে আয়োজন আসলে খোলাখুলি উস্কানি. প্রথম ধাপের পরিকল্পনা মূলক তাত্বিক প্রশিক্ষণ শুরু হওয়ার একদিন আগে ৫ই মে তিবিলিসির উপকন্ঠে  মাত্র ২০ কিলোমিটার দূরের মুখরোভানি সেনাবাহিনীর ঘাঁটিতে আলাদা সাঁজোয়া বাহিনীতে বিদ্রোহ শুরু হয়েছিল.