রাশিয়া বর্তমান সংকটকে ব্যবহার করে অর্থনীতির নতুন ইমেজ সৃষ্টি করবে. বর্তমান কঠিন সময় পার করার একমাত্র উপায়- ফলপ্রসু, উত্পাদন ক্ষমতা,সরবাধুনিকতা ও প্রতিযোগিতামূলক বাজার অর্থনীতির আলোকে এগিয়ে যাওয়া. রেডিও রাশিয়ার সাথে ইংরেজি ভাষায় এক্সক্লুজিভ সাক্ষাত্কারে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর তথ্য সচিব দিমিত্রি পেসকভ একথা বলেন.
রুশ সরকারের সংকট বিমোচনের পদক্ষেপ ফলপ্রসু উত্পাদন বৃদ্ধির দিকে গতিবর্তন করা হয়েছে. এটাই এখনকার প্রধান কাজ.ব্যায়বৃদ্ধি কমিয়ে উত্কৃষ্ট ফলাফলের চেষ্টায় শুধু সরকার ও ব্যাক্তিমালিকানা কম্পানিগুলোই নয় বরং সম্পুর্ন রাষ্ট্রিয় যন্ত্রই তা করে যাচ্ছে, উল্লেখ করেন দিমিত্রি পেসকভ.
বর্তমান পরিস্থিতির উন্নয়নের পুরবাভাসের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য সচিব অন্যান্য এনালেটিকদের মতের সাথেই আশাবাদী. আমাদের এ কথাও মনে রাখতে হবে এ সমস্যায় বিশ্বের বেশিরভাগ দেশই আক্রান্ত হয়েছে এবং রাশিয়া বিশ্ব অর্থনীতির একটা অংশ, বল্লেন পেসকভ.
মনে হয় রাশিয়া সংকটের বিরুদ্ধে লড়তে ভালভাবে প্রস্তুতি নিয়েছে অন্যান্য দেশের সাথে তুলনা করলে. এবং সমস্যা রাশিয়ারও আছে. তবে আমরা এ সংকটের বিরুদ্ধে লড়ছি বাতাসের মধ্য থেকে নয় এবং কোন কাচের দেয়ালের সাথেও নয় এমনকি এস্টেরিলাইজড পরিবেশেও নয়. দিনের পর দিন পরিস্থিতির প্রভাব পড়ছে আমাদের উপর ও বিশ্ব বাজার ব্যাবস্থাপনায়. জ্বালানী সম্পদের দাম পরিবর্তন হচ্ছে. পরিবর্তন হচ্ছে মেটালের দামও. তবে আমি অন্যন্যদের অভিমতকে দুরে সরিয়ে দিচ্ছিনা যে আমাদের পরিস্থিতি আরো খারাপ হতে পারে. আমরা স্বীকার করছি সামনে আমাদের আরো সমস্যার সম্মুখিন হতে পারি. অন্যদিকে সরকারের গৃহীত সংকট বিমোচনের পদক্ষেপ ভাল ফলাফল বয়ে নিয়ে আসছে. এই পদক্ষেপ অবশ্যই রুগ্ন অর্থনীতিকে একবারেই ভাল করে দিতে পারবে না. তবে এর শক্তিশালী এফেক্ট অনুভূত হচ্ছে এবং সংকট হতে ক্ষতির কিছুপরিমান হলেও কমিয়ে দিচ্ছে. আশা করছি এই পদক্ষেপ ভবিষ্যতে সংকটের প্রভাব ব্যাপকভাবে কমিয়ে নিয়ে আসবে.
রাশিয়া দীর্ঘ সময় যাবত সংকটের বিরুদ্ধে লড়ছে এবং সরকারেরও রয়েছে এন্টি ক্রাইসিজ ম্যানেজমেন্টের মূল্যবান অভিজ্ঞতা. তবে কোন কোন মন্ত্রনালয়ের বিরুদ্ধে ফলপ্রসু পদক্ষেপের অভিযোগ রয়েছে. আমাদের স্মরন করা প্রয়োজন যে এই সংকট গ্লোবাল ভাবে প্রথমবারের মত হয়েছে.
দিমিত্রি পেসকভ আরো বলেন সংকট সমাধান ধনাত্বক দিকে এগুচ্ছে. বিশেষ করে রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূদের হার কমিয়েছে. এটাই প্রমান করে জাতীয় মুদ্রার প্রতি জনগনের আস্থা বেড়েছে. অবশ্যই অপটিমাল ফলাফলের জন্য এটাই যথেষ্ট নয়. তবে আমাদের আত্ববিশ্বাষ রয়েছে অর্থনৈতিক পতন হবে না.
দিমিত্রি পেসকভ উল্লেখ করেন বিশ্ব অর্থনৈতিক সংকট মেদভেদেভ পুতিন উভয়কে একত্রিত করেছে. প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর সম্পর্কের সংকট সৃষ্টির গুজবকে তাদের শত্রুদের অপপ্রয়াস বলে আক্ষা দিয়েছেন অবশ্যই কিছু পর্জবেক্ষক খুসি হতেন এমন কিছু হলে যারা সমাজের চোখে স্পিকুলান্ট হিসাবে পরিচিত. প্রধানমন্ত্রীর তথ্য সচিব আনন্দের সাথে বল্লেন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার প্রধান প্রেসিডেন্ট ও সরকার প্রধান ও মন্ত্রী পরিষদ সবাই একযোগে এবং ভালভাবে কাজ করে যাচ্ছেন.