ইরিনা বেলেনকায়কে ফ্রান্সে পাঠানো সম্পর্কে হাঙ্গেরির আদালতের সিদ্বান্ত সম্পর্কে মস্কো দুঃখ প্রকাশ করেছে. রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের প্রতিনিধি ইগর ফ্রেলেভ এ কথা বলেন. বুধবার আদালত বেলেনকায়কে ফ্রান্সে পাঠানোর সিদ্বান্ত নিয়েছে. য়েখানে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়েছে তার তিন বছরবয়সী মেয়েকে চুরি করার. কূটনীতিজ্ঞের কথায়,রাশিয়া ফ্রান্সকে প্রস্তাব করেছে আইনবিদদের পরামর্শের আয়োজন করার,যেহেতু রাশিয়ার আদালত মেয়েটিকে মায়ের সাথে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আর ফ্রান্সের আদালত রায় দিয়েছে বাবার সাথে থাকার. ২০০৮ সালে মেয়েটির বাবা মেয়েটিকে চুরি করে ফ্রান্সে নিয়ে যায় এবং সম্প্রতি মা বাবার কাছ থেকে মেয়েটিকে চুরি করে আনে.কিছুদিন আগে মেয়ের সাথে ইরিনা ধরা পড়ে হাঙ্গেরি- ইউক্রেন সীমান্ত অতিক্রমের সময়.