তুর্কমেনিয়ার রাজধানী আসহাবাদে সি.আই.এস. ভুক্ত রাষ্ট্রগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক চলচে. বৈঠকের প্রধান বিষয় সি.আই.এস সংস্থাকে কিভাবে আরো সক্রিয় করা যায়. তার পথ বের করা তার পথ বের করা .দিনের কর্মসূচিকে কয়েকটিভাগে ভাগ করা হয়েছে. বিশেষজ্ঞরা ধারনা করেন এই বৈঠক খুবই গুরুত্বপুর্ন সংস্থার বিভিন্ন ঘটনাক্রমে. এই ধরনের বৈঠক প্রথমবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে তুর্কমেনিয়ায়. আমাদের বেতার কেন্দ্রে দেয়া সাক্ষাত্কারে এফেকটিভ পলিটিক্স ফান্ডের মহাপরিচালক কিরিল তানায়েভ বলেন যে আজ আসহাবাদে যা হচ্ছে তা খুবই গুরুত্ব বহ করে সেখানে কয়েকটি কর্মসূচী রয়েছে তার উপর নয় বরং কোথায় বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে তার উপর বিবেচনা করে. এখনও তুর্কমেনিয়ায় সি.আই. এস. সংস্থার পূর্ন সদস্য হয়নি. যেহেতু সি.আই.এস ভুক্ত সদস্য হবার জন্য সকল দলিলপত্রে সাক্ষর করেনি, এমনকি তুর্কমেনিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট সাফারমুরাদ নিয়াজভ সি.আই.এস. সংস্থার সহযোগিতা বিকাশের যেকোন কার্জক্রম থেকে দুরত্ব বজায় থাকতেন. কিন্তু গুরবানগুলি বেরদিমোহাম্মদভ তুর্কমেনিয়ার রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসার পর ঐ পরিস্থিতির সম্পুর্ন পরিবর্তন হয়. তুর্কমেনিয়া বহিঃবিশ্ব পদার্পন করতে থাকে এবং সক্রীয়ভাবে মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধি করতে থাকে. এই ধারনায়, অবশ্যই খুব ভাল যে এই ধরনের বৈঠক আসহাবাদে অনুষ্ঠিত হচ্ছে, প্রকৃতপক্ষে সি.আই. এস.ভুক্ত রাষ্ট্রগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের আলোচনা অতটুকু গুরুত্বপুর্ন নয়.তুর্কমেনিয়া সি.আই.এস.ভুক্ত পুর্ন সক্রীয় সদস্য হবে এটাই বড় কথা এবং তুর্কমেনিয়ার সাথে এখন থেকে অর্থনৈতিক সহযোগিতার বিকাশ বৃদ্ধি স্বাগতম, বল্লেন আমাদের বিশেষজ্ঞ কিরিল তানায়েভ
আসহাবাদে সি,আই.এস. ভুক্ত রাষ্ট্রগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক অন্য একটি বিষয়েও গুরুত্ব বহন করে আর তা হল সংস্থার সাথে জর্জিয়ার ক্ষমতাশীল রেজিমের সম্পর্ক ছিন্ন, যদিও জর্জিয়া বিগত বছরগুলিতে সি.আই.এস ইন্ট্রেগেসন প্রকৃয়া থেকে দুরে থেকেছেন. সূচক বিবেচনায় তুর্কমেনিয়া সি.আই.এস ভুক্ত সংস্থার সাথে অংশীদারত্বের ভিত্তিতে ভবিষ্যত সমপর্ক বিকাশ করবে. জ্বালানী ক্ষেত্রে তার ভুমিকা প্রাধান্য রাখতেই তা প্রয়োজন. মধ্য এশিয়ার এই দেশটিতে বিশ্বের অন্যতম গ্যাস মজুত রয়েছে এবং রাশিয়া, কাজাখস্থান ও উজবেকিস্থান হয়ে ইউরোপে জ্বালানী গ্যাস সরবরাহ করতে সক্ষম.
আসহাবাদে সি.আই.এস ভুক্ত রাষ্ট্রগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের কর্মসূচীতে মালদোভিয়ার সাম্প্রতিক ঘটনার উপর মনযোগ আকর্ষনে আলোচনা করা হবে. মালদোভিয়ার জাতীয় সংসদ নিরবাচন ফলাফল বিরোধীদল বয়কট করে রাষ্ট্রীয় পট পরিবর্তনের চেষ্টা করে. আশা করা যাচ্ছে এ বিষয়ে সি.আই.এস ভুক্ত কিষিনেবের অংশীদাররা বাস্তব ঘটনা তুলে ধরবেন.